fbpx

Blog

কিভাবে একজন ভাল সি অ্যান্ড এফ এজেন্ট খুঁজে পাবেন?

আমদানি-রপ্তানি ব্যবস্থাপনায় অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কাজটি পালন করে সি অ্যান্ড এফ এজেন্ট। শিপমেন্টের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করবার জন্য একমাত্র এই এজেন্টদেরই শুল্ক বিভাগে প্রবেশাধিকার আছে। ক্লিয়ারিং (আমদানির ক্ষেত্রে) আর ফরোয়ার্ডিং (রপ্তানির ক্ষেত্রে) এর জন্য রপ্তানিকারক সি অ্যান্ড এফ এজেন্ট নিয়োগ দেন। আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যের পদক্ষেপগুলিতে যেকোন ভুল হলে তা শোধরাতে প্রচুর অর্থ আর সময় ব্যয় করতে হয়। এসব পদক্ষেপ সম্পর্কে ভাল জ্ঞান রাখেন সি অ্যাণ্ড এফ এজেন্টরা। শুল্ক বিভাগের হাল হকিকত সম্বন্ধেও এদের দক্ষতা রয়েছে। কাজেই প্রত্যেক রপ্তানিকারকের উচিত এই এজেন্ট নিয়োগ দেওয়া।

কিভাবে সি অ্যান্ড এফ এজেন্ট কাজ করে?

ওপরের চিত্র থেকে সি অ্যান্ড এফ এজেন্ট এর কর্মতালিকা এবং রপ্তানিকারকের সাথে তাদের সম্পর্ক নিয়ে একটা ধারণা পাওয়া যাবে। শিপমেন্ট এর আগে রপ্তানিকারক শুল্ক বিভাগের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে শিপিং এর কার্যক্রম শুরু করবার জন্য এজেন্ট নিয়োগ দেয়। শুল্ক বিভাগের চাহিদা অনুযায়ী যাবতীয় ডকুমেন্ট ও রপ্তানিকারক এই এই এজেন্টকে দেয়।

শিপমেন্ট প্রক্রিয়ার এজেন্ট এবং রপ্তানিকারক

শুল্ক বিভাগে পণ্য পৌঁছাবার পর সি অ্যান্ড এফ এজেন্টের কাজ শুরু হয়। প্রথমে তারা সমস্ত প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট পরীক্ষা করে। তারপর বিল অব এক্সপোর্ট প্রস্তুত করে। যদি কোন সংশোধনের প্রয়োজন হয় তবে এজেন্টরা রপ্তানিকারকের সাথে যোগাযোগ করে তা জানায়। শুল্ক বিভাগ থেকে রপ্তানির জন্য পণ্য পাঠাবার ক্ষেত্রে এ সমস্ত ডকুমেন্ট আর বিল অব এক্সপোর্ট শুল্ক বিভাগের কর্মকর্তাকে দেওয়া হয়। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে শিপমেন্টের অনুমতি দিয়ে কাগজপত্র সত্যায়িত করে আবার এজেন্টকে ফেরত পাঠানো হয়। এজেন্ট তখন এসব কাগজপত্র আবার রপ্তানিকারককে দেয়। এর মাধ্যমে রপ্তানি বন্দর থেকে পণ্য পাঠাবার আনুষ্ঠানিক শুল্ক কার্যক্রম শেষ হয়েছে বলে ধরে নেওয়া যায়।

এজেন্টের দায়িত্বসমূহ

ক্লিয়ারিং অ্যান্ড ফরোয়ার্ডিং এজেন্টের কর্মতালিকা নিম্নরূপঃ

  • আমদানিকারক ও রপ্তানিকারকের কাছ থেকে পণ্য বুঝে নেওয়া।
  • পণ্য ঠিকভাবে গুদামজাত করা ।
  • শুল্ক বিভাগের আনুষ্ঠানিকতা সম্পাদন করা।
  • বিল অব এক্সপোর্ট প্রস্তুত করা।
  • সার্ভিস রেকর্ড ঠিকঠাক প্রস্তুত করা।

কিভাবে একজন ভাল এজেন্ট খুঁজে পাবেন?

শিপিং এর পদ্ধতির ওপর ভিত্তি করে সি অ্যান্ড এফ এজেন্টের রকমফের হয়। সব ক্ষেত্রে একই এজেন্ট না নিয়োগ দেওয়াই ভাল। কাজেই সঠিক এজেন্ট খুঁজে পাওয়ার ক্ষেত্রে আপনাকে কিছুটা ঝক্কি পোহাতে হতে পারে। নতুন রপ্তানিকারক হিসেবে আপনার জন্য কোন রেফারেন্সের মাধ্যমে এজেন্ট নিয়োগ দেওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। এছাড়াও আগের রেকর্ড এবং অন্যদের রিভিউ এর মাধ্যমেও আপনি এ কাজে সহায়তা পেতে পারেন।  

আপনাকে যেসব কাজে সাহায্য করবে

  • পরিবহন সম্পর্কে পরামর্শ দেওয়া।
  • স্থানীয় পরিবহনের ব্যবস্থা করা।
  • স্থানীয় আইন সম্পর্কে পরামর্শ দেওয়া।
  • পণ্য লেবেলিং ও প্যাকিং এর কাজ করে দেওয়া।
  • শুল্ক বিভাগের ছাড়পত্র যোগাড়ে সহায়তা করা।
  • শুল্ক করের ক্ষেত্রে ছাড় থাকলে তা আদায় করা।
  • পণ্যের কর জমা সংক্রান্ত কার্যাদি পালন করা।

এক কথায় বলা চলে, ভাল এজেন্ট পণ্য আপনার তাঁবে থেকে বার হওয়ার পর আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অর্থ জমা হওয়া পর্যন্ত যাবতীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে।

এজেন্ট নিয়োগে খেয়াল রাখতে হবেঃ

  • পণ্য পরিবহনের সবগুলি খাত সম্পর্কে ভাল জ্ঞান আছে এমন এজেন্ট নিয়োগ দেবেন। তাহলে পরিবহন সংক্রান্ত কোন সমস্যা হলে সাথে সাথে বিকল্প বাতলে দেবে। 
  • গুদামে পণ্য জমা রাখা সম্পর্কে ভাল জ্ঞান থাকা জরুরি।
  • ইন্স্যুরেন্স
  • শিপিং ডকুমেন্ট প্রস্তুত করা ও ডকুমেন্ট সম্পর্কিত সর্ববিষয়ে অভিজ্ঞ।
  • ব্যাংকের আনুষ্ঠানিকতায় দক্ষ হওয়া।

এর সাথে ভাল হয় যদি বিদেশেও আপনার এজেন্টের ভাল যোগাযোগ থাকে। সেক্ষেত্রে সাময়িকভাবে পণ্য কোথাও জমা রাখা বা যেকোন সমস্যা বাধলে দ্রুততার সাথে সমাধানে সাহায্য করতে পারবে।

এজেন্ট নিয়োগে খোলাখুলি আলাপ করতে হবে

  • কি ধরণের পরিসেবা আপনাকে আপনার এজেন্ট দিবে? খেয়াল রাখবেন, ঠিক কি পরিসেবা আপনার দরকার। আপনার দরকার নেই এমন কাজের জন্য যেন বাড়তি ভাড়া দাবি না করে বসে সেদিকে দেখবেন।
  • উল্লিখিত সেবা দেওয়ার পাশাপাশি কতটা দায়দায়িত্ব এজেন্ট নিতে রাজি সে বিষয়ে আগেই খোলাসা হয়ে নেবেন।
  • কোন কোন খাতে ক্ষতিপূরণ পাওয়ার সম্ভাবনা আছে জেনে নেওয়া ভাল।
  • এজেন্টকে কি পরিমাণ অর্থ দিতে হবে।

সব দিক খেয়াল রেখে এজেন্ট ভাড়া করবার আগে অবশ্যই অন্যান্যদের কাছ থেকে মতামত নিলে ভাল হয়। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায়, সস্তায় সেবা দিলেও সেবার মান হয়তো খারাপ।

রপ্তানি বাণিজ্যে আপনার সাফল্য অনেকাংশেই নির্ভর করে আপনি কতখানি দ্রুততা আর দক্ষতার সাথে আপনার পণ্য বায়ারের কাছে শিপমেন্টে পাঠাতে পারছেন। আর এই কাজটি করার ক্ষেত্রে সবথেকে প্রয়োজনীয় কাজটি করে এই এজেন্ট। কাজেই সবদিক বিবেচনা করে সতর্কতার সাথে সি অ্যাণ্ড এফ এজেন্ট ভাড়া করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *